-->

Breaking News

দেবীদ্বারে একদিকে মোটরসাইকেল না পেয়ে শিক্ষার্থী অপরদিকে রোগযন্ত্রণা সইতে না পেরে গৃহবধূর আত্মহত্যা

তাপস চন্দ্র সরকার কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লার দেবীদ্বারে একই দিনে পৃথক দু’টি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (২৬ আগষ্ট) দিবাগত রাতে উপজেলার এলাহাবাদ গ্রামের সালমান (১৬) নামে এক স্কুল শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ এবং বাজেবাখর গ্রামের ঝর্ণা আক্তার (৩৮) নামে এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শিক্ষার্থী আত্মহত্যার বিষয়ে সালমানের বাবা মোঃ কুদ্দুস মিয়া বলেন, আমার ছেলে বেশ কয়েকদিন যাবৎ তাকে মোটরসাইকেল কিনে দিতে আবদার করছিলো। আমরা বলছিলাম হাতে টাকা হলে কয়েকদিন পর কিনে দেব। এতেই সালমান আমাদের অজান্তে ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। সালমান এলাহাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীতে পড়তো।

অপর ঘটনা গৃহবধুর আত্মহত্যার বিষয়ে  জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড সদস্য ইদ্রিস হোসেন জানায়, ঝর্ণা আক্তার(৩৮) বাজেবাখর গ্রামের মোশারফ হোসেনের দ্বিতীয় স্ত্রী। সে দীর্ঘদিন ধরে শ্বাস কষ্টসহ নানা রোগে ভোগছিলেন। নিহতের পরিবার ও স্থানীয়দের থেকে জানতে পেরেছি পরিবারের দারিদ্রতার কারনে সঠিক চিকিৎসা পায়নি সে। তাই রোগযন্ত্রণা সইতে না পেরে কীটনাশক ট্যাবলেট খেয়ে ঝর্ণা আত্মহত্যা করেছে।

এ বিষয়ে রোববার সন্ধ্যায় দেবীদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ কমল কৃঞ্চ ধর জানান- আত্মহত্যার ঘটনার খবর পেয়ে লাশ দুটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। ঘটনায় পৃথক দু’টি অপমৃত্যর মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়ানাতদন্ত শেষে নিহতেদের লাশ রোববার বিকেলে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

No comments