কুমিল্লা আদালত অঙ্গনে টাউট-দালাল উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন নারী আইনজীবী - Sokalerkotha -->

Breaking News

কুমিল্লা আদালত অঙ্গনে টাউট-দালাল উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন নারী আইনজীবী

নিজস্ব প্রতিবেদক: রোববার (২৭ আগস্ট) দুপুরবেলা কুমিল্লা আদালত প্রাঙ্গনে কুমিল্লা জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট মোঃ আহছানউল্লাহ খন্দকার, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোঃ আবু তাহের ও এনরোলমেন্ট সেক্রেটারি এডভোকেট সৈয়দ শাহিদুল আহসান টিপু'র নির্দেশক্রমে জেলা আইনজীবী সমিতির এনরোলমেন্ট সাব কমিটির কয়েকটা বিজ্ঞ নারী সদস্য টাউট উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন।

জেলা আইনজীবী সমিতির নিয়মিত সদস্য বিজ্ঞ এডভোকেট শারমিন খান ও এডভোকেট আফরোজা আক্তার রুবির নেতৃত্বে অভিযানে অংশ নেন এডভোকেট শারমিন অপি, এডভোকেট উম্মে সালেহা, এডভোকেট নচিবা মাহমুদ, এডভোকেট রেশমা আক্তার, এডভকেট তানজিলা ইসলাম, এডভোকেট রোকসানা শিকদার পলি, এডভোকেট শারমিন সুলতানা, এডভোকেট কানিজ ফাতেমা বৃষ্টি ও এডভোকেট রোকসানা রুকু প্রমুখ।

এদিকে,  জেলা আইনজীবী সমিতির এনরোলমেন্ট সেক্রেটারি মোঃ শাহিদুল আহসান টিপু বলেন- আইজীবীবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিত করার জন্য সমিতির এনরোলমেন্ট সাব কমিটি টাউট উচ্ছেদ অভিযান নিয়মিত পরিচালিত হবে। আদালতপাড়া থেকে ভুয়া আইনজীবী, টাউট, দালাল, ভুয়া মুহুরি ও ক্লার্ক শনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আদালতপাড়া থেকে টাউট-দালাল নির্মূল করতে হলে বিচারপ্রার্থীদের নিজে আরো সচেতন হতে হবে। এ অভিযান অব্যাহত থাকলে আদালতপাড়া হতে টাউট-দালালমুক্ত করা সম্ভব।

অপরদিকে, জেলা আইনজীবী সমিতির এনরোলমেন্ট সাব কমিটির সদস্য কুমিল্লা আদালত অঙ্গনের পরিচিত মুখ এডভোকেট তাপস চন্দ্র সরকার বলেন- বিচার প্রার্থীদের শেষ আশ্রয়স্থল হল আদালত। আদালতের মাধ্যমে ন্যায় বিচারপ্রাপ্তি একজন নাগরিকের অধিকার। কেবল বিধিবদ্ধ আইনই নয়, আমাদের সংবিধানও নাগরিকের সে অধিকারের স্বীকৃতি দিয়েছে। বাংলাদেশ সংবিধানের ২৭ অনুচ্ছেদে বলা আছে- ’সকল নাগরিক আইনের দৃষ্টিতে সমান এবং আইনের সমান আশ্রয় লাভের অধিকারী’। তিনি বলেন- বিচার প্রার্থীদের ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে পারে আদালতের বিচারক, কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইনজীবী ও আইনজীবী কর্তৃক নিযুক্তিয় ক্লার্করা। আর এই ন্যায় বিচার নিশ্চিতে প্রতিবন্ধকতা হয়ে দাড়িয়েছে টাউট ও দালালের দৌরাত্ম। তিনি আরও বলেন- সারাদেশের আইন অঙ্গন থেকে টাউট, দালাল, ভুয়া আইনজীবীদের দৌরাত্ম ও তৎপরতা বন্ধে কার্যকরি ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। টাউট-দালালদের খপ্পর থেকে রেহাই পেতে মামলা-মোকদ্দমা সংক্রান্ত বিষয়াদি থাকলে সরাসরি একজন আইনজীবীর পরামর্শ নিতে হবে। বিচারপ্রার্থীদের আইনজীবী ব্যতীত কারো কাছে আইনি পরামর্শ ও আর্থিক লেনদেন করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

টাউট দালাল অভিযান পরিচালনাকালে এড. শারমিন খান ও এড. আফরোজা আক্তার রুবি বলেন- যেসব আইনজীবী সহকারীগণ জেলা আইনজীবী সমিতির কর্তৃক লাইসেন্স, নির্ধারিত পোশাক ও ব্যাজ ব্যতিত কোর্ট অঙ্গনে এ পেশায় কাজ করছেন তাদেরকে আমরা চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

No comments