-->

Breaking News

ছাত্র দল নেতাদের অস্ত্র সংগ্রহ, আভিযানে সাত জন আটক


মোঃ সজিবুর রহমান (নায়েক): গত ২৭ আগষ্ট রবিবার বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ 'ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল দখলের পরিকল্পনা করে অবৈধ অস্ত্র সংগ্রহ করছে ছাত্র দল' এই তথ্য পেয়ে অভিযান চালিয়ে সাত ছাত্র দল নেতাকে গ্রেফতার করে বাংলাদেশে গোয়েন্দা পুলিশ। 'ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল দখলের পরিকল্পনা করে অবৈধ অস্ত্র সংগ্রহ করছে ছাত্র দল' এই ঘটনায় বি এন পি নেতাদের ইন্ধন থাকার কথা জানিয়েছে বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ। বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ প্রধান হারুন-অর-রশিদ ২৮ আগষ্ট সোমবার সংবাদ সম্মেলনে জানান এগারো টি অস্ত্র কেনার তথ্য পেয়েছে বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ। এর ভিতর চার টি উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে বাকি  সাত টি অস্ত্র উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ।২৭ আগষ্ট রবিবার বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ চার টি অস্ত্র সহ সাত ছাত্র দল নেতাকে গ্রেফতারের পর বি এন পি এর শীর্ষ কয়েক নেতা বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ কে হুমকি ও দিয়েছে  বলে দাবি করেন বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ প্রধান হারুন-অর-রশিদ। রবিবার আগ্নেয়াস্ত্র সহ ছাত্র দলের সাত নেতাকে গ্রেফতার করে বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদে বের হয়ে আছে অস্ত্র সংগ্রহের বিষয় টি জানা যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল দখলের পরিকল্পনার কথাও। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ প্রধান হারুন-অর-রশিদ বলেন-“তারা যে এগারো টি অস্ত্র এনেছে তাদের এক জনের কথপোকথন আমরা পেয়েছি, তার মধ্যে মাসুদ সে জিসানকে বলছে যে ভাই এই অস্ত্র টা আমরা হল দখলের কাজে ব্যবহার করবো। এমন ভাবে তারা যে এগারো টি অস্ত্র এনেছে এর ভিতর চারটা উদ্ধার করা হয়েছে বাকি অস্ত্র গুলো তারা কোথায় কি কাজে ব্যবহার করবে সে তথ্য আমরা পেয়েছি।”


বি এন পি এর উচ্চপর্যায়ের নেতাদের নির্দেশনায় ছাত্র দল এ সব তৎপরতা চালাচ্ছে বলেও জানায় বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ প্রধান হারুন-অর-রশিদ। তিনি আরো বলেন-“এখন যদি কেউ সাংবাদিকদের ডেকে সংবাদ সম্মেলন করে, যদি তাদের কে নির্দোষ দাবি করে, তাহলে আমি মনে করি এ অস্ত্র ব্যবসায়ীদের কে এক ধরনের আশ্রয় দেওয়া এবং তাদের কে আশ্রয় দিলে পরবর্তীতে যারা অস্ত্র ব্যবসায়ী তারা উৎসাহিত হবে। কেউ যদি অস্ত্র ব্যবসায়ীদের ধরার পরে যদি পুলিশ কে হুমকি দেয় তাদের মনে রাখা উচিৎ কারো হুমকিতে বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ ও বাংলাদেশ পুলিশ ভয় পায় না। বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ প্রধান হারুন-অর-রশিদ‌ আরো বলেন বরং আমারা যাদের নাম পেয়েছি তাদের সবাইকে আমরা আইনের আওতায় নিয়ে আসবো এবং তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করবো যাতে তারা এ ধরনের অপরাধ দ্বিতীয় বার করার সাহস না পায়। এবং এই অস্ত্র উদ্ধার অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ প্রধান হারুন-অর-রশিদ। তারা আর কোন নাশকতার চেষ্টা করছে কিনা সে দিকেও নজরদারি অব্যাহত রয়েছে বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ এর পক্ষ থেকে।

No comments