বাজে পারফরম্যান্স দেখিয়ে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিলো বাংলাদেশ


নিলয়, স্পোর্টস নিউজ:
নেদারল্যান্ডস আফ্রিকাকে হারিয়ে দিয়েছে। সেমিফাইনালে সহজ সমীকরণ বাংলাদেশ পাকিস্থানের ম্যাচে যে জিতবে সেই সেমিতে খেলবে। এমন সহজ সমীকরণে সকাল দশটায় ওভালের আ্যডিলেডে মুখোমুখি হয় দুই দল। প্রথমে ব্যাট করার সুযোগ পায় বাংলাদেশ। শুরুতেই সাবলিল ক্রিকেট শুরু করে টাইগার শিবির প্রথম ৬ ওভারে এক উইকেট হারিয়ে তুলে নেন ৪১ রান। এরপর ধীরে ধীরে নাজমুল শান্ত এবং সৌম্য সরকারের ব্যাট চওড়া হয় ১০ ওভার শেষে এক উইকেটেই সংগ্রহ ৭০ রান। সাদাব খানের তৃতীয় ওভারে পরপর সৌম্য এবং অধিনায়ক সাকিব আউট হলে বাংলাদেশ খাদের কিনারায় চলে যায়। টেনে তোলার জন্য আফিফ, মোসাদ্দেক, কিংবা নুরুল কেউই কার্যকর ইনিংস দেখাতে পারেন নাই ফলে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২০ ওভার শেষ ১২৭। সহজ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে তাসকিনের প্রথম ওভারেই নুরুলের হাতে আউট হতে পারতেন রেজওয়ান কিন্তু সহজ ক্যাচটা ছেড়েই যেনো ম্যাচ হাতছাড়া করে দিলেন নুরুল হাসান সোহান। প্রথম দশ ওভার বাংলাদেশী বোলারদের দাপটে রান রেটে পিছিয়ে পড়া পাকিস্থানের ম্যাচ জয়ে আর কোন বাঁধা সৃষ্টি করতে পারেনি টাইগাররা। এরই সাথে শেষ হলো বাংলাদেশের বিশ্বকাপ মিশন।

আজকের ম্যাচে বাংলাদেশী ব্যাটারদের মধ্যে কচ্ছপ গতিতে ৫০ রান করে নিজের জায়গাটা পোক্ত করেন নাজমুল হোসেন শান্ত। আধুনিক টি২০ ক্রিকেটের লেস কিংবা টুইস্ট কোন কিছুই খুঁজে পাওয়া যায় না বাংলাদেশের খেলায়। মূলত ইন্টেন্ট আর ইমপ্যাক্ট এর কথা শ্রীধরন বলে আসলেও চলমান বিশ্বকাপে এর ছিটেফোঁটা ও দেখতে পায় নাই ক্রিকেটপ্রেমী দর্শকরা। বার বার হতাশ হতে হয়েছে ১৬ কোটি ক্রিকেটপ্রেমী মানুষদের। ট্রাই নেশন থেকে শুরু করে নুরুল হাসান সোহান, ইয়াসির রাব্বি,মোসাদ্দেক প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স দেখাতে পারে নাই। 

বোলিং ডিপার্টমেন্ট ও মুস্তাফিজ রান কম দিলেও উইকেটের দেখা পান নাই। টি২০ মূলত ব্যাটিংদের খেলা আর যে জায়গাটায় সমস্যা বাংলাদেশের ওফেনিংয়ে নাজমুল শান্তের দলে টিকে থাকার মত বলে বলে রান, আর মিডল এবং ফিনিশিংয়ে দুর্বলতা এখন সবার জানা। এদের দলে অর্ন্তভুক্ত নির্বাচকমণ্ডলীর যোগ্যতা নিয়েও প্রশ্ন উঠে শুধু কিপিং কোটায় নুরুল কিভাবে জাতীয় দলে খেলে যেখানে লিটন জেনিয়ুন উইকেট কিপার ব্যাটার। অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহ কে বাদ দিয়ে ইয়াসির রাব্বিকে কেনো?ইনফর্ম লিটনকে তার জায়গায় না খেলিয়ে মিডলে কেনো??অযোগ্য কোচদের নিয়োগ দেওয়া! অনেক প্রশ্নের সঠিক উত্তর নেই বিসিবির কাছে। 'তাই জীবনানন্দের বাক্যে ধরেই বলতে হয় অদ্ভুত উঠের পিঠে চড়ছে ক্রিকেট 'এ দেশের মানুষ ক্রিকেট ভালবাসে ফলাফল দেখতে চায়। তাই ক্রিকেটকে শক্তিশালী করতে হলে বিসিবির অনিয়ম কিংবা অদক্ষতা গুলোকে চিহ্নিত করে এখনি সমাধান না করা হলে দেশের ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ অন্ধকারে ডুবে যাবে।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url