-->

Breaking News

পুলিশের ছেলের সাথে প্রেম, বিয়ের দাবিতে ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীর অনড় অবস্থান

মো: সাহেব আলী, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে কলেজ পড়ুয়া পুলিশ কনস্টেবলের ছেলের সাথে ১০ম শ্রেণির ছাত্রীর প্রেমের আড়ালে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

ভুক্তভোগী ১৭ বছর বয়সী সেই ছাত্রী উপজেলার রূপবাটী ইউনিয়নের চয়ড়া গ্রামের জনৈক কৃষকের মেয়ে এবং স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তার প্রেমিক রাকিবুল ইসলাম জয় (১৮) উপেজলার গালা ইউনিয়নের বিনোটিয়া গ্রামের সাইফুল ইসলাম (পুলিশ কনস্টেবল, চট্টগ্রাম) এবং বিনোটিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা নাজমা পারভীন দম্পতির ছেলে। সে বেড়া সরকারি কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্র। 

সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বিনোটিয়া গ্রামে রাকিবুল ইসলাম জয়ের দাদা আব্দুস সামাদের বাড়িতে গিয়ে ভুক্তভোগী সেই মেয়েটিকে পাওয়া যায়। 

এসময় সে সাংবাদিকদের জানায়, দীর্ঘ আট মাস যাবৎ জয়ের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক। এরই মধ্যে জয়দের বাড়ি এবং শাহজাদপুরের একটি রেস্টুরেন্টে একাধিকবার তাদের মাঝে অনৈতিক শারিরীক সম্পর্ক হয়েছে। সবশেষে তার প্রেমিক জয় তিনদিন পূর্বে তাকে নিয়ে বের হলে কাশিপুরে স্থানীয় জনতার হাতে আটকের পর তাকে বিনোটিয়ার এই বাড়িতে নিয়ে আসে। সেদিন থেকে বিয়ের দাবিতে মেয়েটি এখানেই অবস্থান করছে।

জয়ের দাদি রনজিদা খাতুন তিনদিন আগে তার প্রেমিকাকে বাড়িতে আশ্রয় দেয়ার কথা স্বীকার করেন ।মেয়েটির বাবা জানান, আমার মেয়ের যে কলঙ্ক হয়েছে এখন এই ছেলের সাথে বিয়ে না দিলে আমি মেয়েকে ফেরত নিবোনা। প্রেমিক জয়ের মা নাজমা বেগম নানা কৌশলে সাংবাদিকদের এড়িয়ে যান। এমনকি তার নাম এবং পরিচয় ভুল দিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করেন। সোমবার রাত আটটার দিকে পুলিশের একটি দল মেয়েটিকে উদ্ধার করে শাহজাদপুর থানায় নিয়ে আসেন। 

শাহজাদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি নজরুল ইসলাম মৃধা জানান, ছেলে মেয়ে উভয়েই অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় বিষয়টি তাদের অভিভাবকদের সাথে আলোচনা করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

No comments